প্রিয় কবিতাগুলি

বাংলার মুখ আমি

জীবনানন্দ দাশ

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি, তাই আমি পৃথিবীর রূপ

খুঁজিতে যাই না আর : অন্ধকারে জেগে উঠে ডুমুরের গাছে

চেয়ে দেখি ছাতার মতন বড়ো পাতাটির নিচে ব’সে আছে

কবিতা

এ কাদের গান

আকাশে আমার তোমার মাটি মিশে
আমি জ্বলেছি তোমার লুসিফেরিনের বিষে
নীলনদের ধারে ঘুঙুর পড়ে তোমার নৃত্য
স্ফিংসের মত হতে পারি একদৃষ্টের ভৃত‍্য
উশ্রীর পাশে তোমায় খুজে পেতে পারি
কোনো মৃত কবির প্লানচেটে দেব পাড়ি
অন্ধ ছেলে বন্ধ হয়ে ছুটব তোমার পানে পানে
মিশবে আকাশ বাতাস, জোনাকিদের গানে গানে

কবিতা

এ কাদের গান

আকাশে আমার তোমার মাটি মিশে
আমি জ্বলেছি তোমার লুসিফেরিনের বিষে
নীলনদের ধারে ঘুঙুর পড়ে তোমার নৃত্য
স্ফিংসের মত হতে পারি একদৃষ্টের ভৃত‍্য
উশ্রীর পাশে তোমায় খুজে পেতে পারি
কোনো মৃত কবির প্লানচেটে দেব পাড়ি
অন্ধ ছেলে বন্ধ হয়ে ছুটব তোমার পানে পানে
মিশবে আকাশ বাতাস, জোনাকিদের গানে গানে

কবিতা

"ক্যালেন্দি" [জুন ০৪,২০১৭]

তুমিই প্রথম মেয়ে যার সাথে আমি

অতো দীর্ঘ সময় ধরে হেটেছি,

তুমিই একমাত্র মেয়ে যার সাথে

আমি অতো দীর্ঘ সময় হাটতে হাটতে

আবোল তাবোল গল্পের জাল বুনেছি।

সাইনুর রহমান শুভ

কোজাগরী পূর্ণিমায় উদভ্রান্ত পথচলা

আজ কোজাগরী পূর্ণিমার রাতে
বিস্মৃতির অন্তরালে কারা যেন প্রলয় নাচন নাচে
দূর থেকে যেন উস্কে দেয় সমর্পিত ভালোবাসার গান।
আমি বিষন্ন চাতালে বসে টুপটাপ পীড়নের শব্দ শুনি
আর মন্দিরার টুংটাং শব্দে বিভিষীকা উদযাপন করি।
অতঃপর বৈরীতা আর শঠতার দ্বিধাদ্বন্দে
রাজহাসের স্নানলীলা উপভোগ করি;
পরক্ষণেই আদিম উন্মাদনায় নিজেকে সপে দিই
ভাগাড়ে শকুনদের দলে;
স্বীয় সত্তাকে ছিড়ে-কুরে খাওয়ার অহমিকায়।

নিঃসীম অন্ধকারে বসে স্বপ্নের জাল ছিড়ি যতনে
দুঃস্বপ্নের মরীচিকায় যে জাল ছিন্ন হয়েছিল হেলায়
দুর্বিসহ জীবনের অপরূপ ছবি অঙ্কিত হয়েছিল
যে মায়ায়;

আমি নিরবিচ্ছিন্ন ভেঙ্গেই চলেছি বাঁধন, স্বপ্নীলে
আষ্টেপৃষ্ঠে বেঁধেছি নিজেকে অনিয়মতান্ত্রিক বেড়াজালে
ভাবনাকে ভাবিয়ে তুলেছি উচ্চমার্গের কোন সুরে
দূরত্বটাকে দিয়েছি বাড়িয়ে তোমার থেকে বহুযোজন দূরে।

অতঃপর আমন্ত্রন রইল তোমার
প্রদর্শনী হবে দৃক গ্যালারীতে
উদভ্রান্ত, দিকভ্রান্ত, পথভ্রষ্ট, নীতি বর্জিত অনাচারের
আর যতসব অহেতুক পৃষ্ঠপোষকতার।

Kobita

জবাব চাই

কেউ না জানুক, আমি তো জানি...
ঠিক কতটা সাহস লেগেছিল আমায় জানতে...
আমি তো জানি.. 
ঠিক কতটা আশায় আমায় চেয়েছিলে।

ঠিক কতটা উচ্ছ্বাসে বলেছিলে, " তুমিই প্রথম নারী"।
আমার জীবনে প্রেমের হাতছানি দিয়েছে অনেকে....
"তার" প্রেমের দর্পে আমি উপেক্ষা দিয়েছি সকলকে...
তোমাকে তার জায়গা দিতে পারিনি..
তবে তোমাকে তো আমি উপেক্ষা করতে পারিনি..
তুমি তো হাজার প্রেমিকের ভীড়ে কেবল নাম নও!
তুমি বলবে.." আমি যা চাই... তার কি কিছু দিলে?"
কিছুই কি দিইনি?

তোমার ভাঙা তাসের ঘরের পাতা আগলাইনি আমি
অনেক রাতে সুখদুঃখের দোসর হইনি আমি বল
তোমার প্রতিটা গল্পের মুগ্ধ শ্রোতা থাকিনি আমি
আমার সব পাওয়া, না-পাওয়ার সাক্ষী করিনি তোমায়?
সব প্রত্যাখ্যানের গল্প তো এক হয় না....
তার জায়গা তোমায় দেবনা একথা মিথ্যে নয়
তবে তোমার জায়গাও আমি আর কাউকে দেব না!
আমার পাগলামি তোমার বন্ধুত্বে আগলিও....
আমাদের মত সুখী আর কে বল?
প্রত্যাখ্যান আমাদের বন্ধু করেছে...
প্রেমটাই সব হল?
আমার বন্ধুত্ব পারেনি তোমার ক্ষতের মলম হতে?
এখনও তুমি বলবে....
তুমি প্রত্যাখ্যাত?... 
কিছুই কি দিতে পারিনি আমি?

Written by: Ankusha Sarkar
Kobita

কেন হারিয়ে গেলে

সামায়েল রহমান
সুমেল

আমার জীবনে কেনই এসেছিলে তুমি
কেনই মুগ্ধ করেছিলে
আমায় তোমার কথার ছলনায়
কেনই বা আজ আমায়
ফেলে দূর অজানায়
হারিয়ে গেলে তুমি……
নাকি ভালবাসার
অভিনয় করছ তুমি
আমার সাথে ……

Kobita