ট্যাগগুলি » বাংলা

জাতীয় পতাকা বিতর্কে ক্ষমা চাইলেন অক্ষয় কুমার

মুম্বাই, ২৪ জুলাই (হি.স.) : জাতীয় পতাকা বিতর্কে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটেই প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইলেন বলিউড খিলাড়ি অক্ষয় কুমার| মহিলাদের ক্রিকেট বিশ্বকাপ ফাইনাল দেখতে রবিবার লন্ডনের স্টেডিয়ামে হাজির হন অক্ষয় কুমার | ভারতের মহিলা ক্রিকেটারদের উদ্বুদ্ধ করতে অক্ষয় কুমার তিরঙ্গা হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে পড়েন|  মিতালি, ঝুলনরা যাতে আর ভালভাবে খেলতে পারেন, তার জন্য জাতীয় পতাকা হাতে নিয়েই তাঁদের উদ্বুদ্ধ করতে শুরু করেন অক্ষয় |

অভিযোগ, অক্ষয় কুমার যেভাবে জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে গ্যালারি থেকে মিতালিদের উত্সাহ যোগাচ্ছিলেন, তাতে নিয়ম ভঙ্গ হয়েছে  | অর্থাত, জাতীয় পতাকা অবমাননা করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা | আর ওই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পর পরই টু্যইটটি ডিলিট করে দেন অক্ষয় | পাশাপাশি জাতীয় পতাকা অবমাননার জন্য ক্ষমাও চেয়ে নেন তিনি  | পাশাপাশি জাতীয় পতাকার ছবি পোস্ট করেও অক্ষয় অন্যায় করেছেন বলে অভিযোগ | এরপর ফের টু্যইট করেন অক্ষয় কুমার বলেন, ওই ঘটনার জন্য তিনি দুঃখিত |  কারও ভাবনায় আঘাত করার জন্য, তিনি কিছু করেননি | ওই টু্যইটটি ডিলিট করে দিয়েছেন বলেও সেখানে জানান আক্ষয়|

News

উত্তমকুমারের মৃতু্যদিনে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন নজরুল মঞ্চে

কলকাতা, ২৪ জুলাই (হি.স.) : মহানায়ক উত্তমকুমারের স্মরণসভায় বাংলার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে টেলিফিল্ম স্টুডিও উপহার দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি| সোমবার নজরুল মঞ্চে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে মহানায়ক উত্তমকুমারের মৃতু্যদিনে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল | ২৪শে জুলাই উত্তমকুমারের মৃতু্যদিন উপলক্ষ্যে এই বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল | সেখানেই এই টেলিফিল্ম স্টুডিও তৈরির কথা ঘোষণা করেন তিনি| ১৩৪ কোটি টাকা এই প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ করেছে রাজ্য সরকার | ফিল্ম সিটির নির্মাণও শেষের পথে | আগামী ৮ থেকে ৯ মাসের মধ্যে ফিল্মসিটি সম্পূর্ণ তৈরি হয়ে যাবে বলে এদিন ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী |

News

দক্ষিণাঞ্চলীয় ইরানে মৃদু ভূকম্পন, কম্পাঙ্ক ৫.৪

তেহরান, ২৪ জুলাই (হি.স.): মৃদু ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল দক্ষিণাঞ্চলীয় ইরানের বিস্তীর্ণ অঞ্চল| রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের তীব্রতা ছিল ৫.৪| মৃদু ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতি বা প্রাণহানির কোনও খবর পাওয়া যায়নি| তবে ভূকম্পনের পরেই দক্ষিণাঞ্চলীয় ইরানের প্রত্যন্ত এলাকায় বিদু্যত্ চলে যায়| আলো নিভতেই ঘুটঘুটে অন্ধকারে নিমজ্জিত হয় গোটা এলাকা| ইরানের ভূতত্ত্ববিদরা জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় অনুযায়ী রবিবার রাত ১০টা নাগাদ ৫.৪ তীব্রতার ভূকম্পন অনুভূত হয় ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশের কেরমানে, ভূপৃষ্ঠের ১০ কিলোমিটার গভীরে| ভূকম্পনের জেরে এখনও পর‌্যন্ত ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি|

উল্লেখ্য, ২০০৩ সালে ৬.৬ তীব্রতার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল ইরানের বাম শহর| শক্তিশালী ভূমিকম্পে প্রাণ হারিয়েছিলেন বহু মানুষ|

News

আত্মঘাতী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে রক্তাক্ত কাৱুল, মৃত অন্তত ২৪

কাৱুল, ২৪ জুলাই (হি.স.): আত্মঘাতী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে রক্তাক্ত হল আফগানিস্তানের রাজধানী কাৱুল| সোমবার সকালে কাৱুলের পশ্চিমাংশে আত্মঘাতী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ হয়| জোরালো বিস্ফোরণে এখনও পর‌্যন্ত ২৪ জনের মৃতু্য হয়েছে| আহতের সংখ্যা ৪০ ছাড়িয়েছে| আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা সঙ্কটজনক| তাই মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে|

আফগানিস্তানের আভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের মুখপাত্র নাজিব ড্যানিশ জানিয়েছেন, সোমবার সকালে কাৱুলের পশ্চিম প্রান্তে সরকারের ডেপুটি চিফ এক্সিকিউটিভ মহম্মদ মেহাকিকের বাড়ির সামনে আত্মঘাতী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ হয়| ওই এলাকা মূলত শিয়া অধু্যষিত| তবে হামলার নেপথ্যে মূল টার্গেট কে বা কারা ছিলেন, তা এখনও পর‌্যন্ত স্পষ্টভাবে জানাতে পারেনি আফগান প্রশাসন| জোরালো আত্মঘাতী গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে এখনও পর‌্যন্ত ২৪ জনের মৃতু্য হয়েছে| আহত ৪০ জনের মধ্যে কয়েকজনের শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক|

উল্লেখ্য, সম্প্রতি কাৱুলের একটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা চালায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা| সেই হামলার রেশ-আতঙ্ক এখনও কাটেনি, এরই মধ্যে ফের সন্ত্রাসী হামলার শিকার হল আফগানিস্তান| এখনও পর‌্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন হামলার দায় স্বীকার করেনি|

News

দিলীপ ঘোষের দাবি সত্য প্রমাণিত করে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ক্রস ভোটিং

কলকাতা, ২১ জুলাই

 সত্যি প্রমাণিত হল বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ শাখার সভাপতি দিলীপ ঘোষের মন্তব্য| রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এরাজ্যের বিধানসভায় ক্রস ভোটিংয়ের প্রমাণ মিলল| বৃহস্পতিবারই দেশের চতুর্দশ রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছেন রামনাথ কোবিন্দ| বিরোধী প্রার্থী মীরা কুমারকে হারিয়ে ৬৫.৬৫ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন এনডিএ-এর রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী রামনাথ কোবিন্দ | পশ্চিমবঙ্গ থেকে ১১ বিধায়কের ভোট পেয়েছেন রামনাথ কোবিন্দ| যা দিলীপ ঘোষের দাবিকে সত্যি প্রমানিত করেছে| উল্লেখ্য পশ্চিমবঙ্গেই সবচেয়ে বেশি ক্রস ভোটিং হয়েছে| শুধু তাই নয় সারা দেশের মধ্যে এরাজ্য থেকেই সবচেয়ে বেশি ভোট বাতিল হয়েছে| রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বাতিল হয় ১০টি ভোট| যা অন্য ইঙ্গিত বহনকরছে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা|

 প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফলে দেখা গেছে, এনডিএ প্রার্থী রামনাথ কোবিন্দ ৬৬.৬৫ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী হয়ে চতুর্দশ প্রেসিডেন্ট হয়েছে| তিনি পেয়েছেন ২৯৩০ জনের ভোট| যার মোট ভোট মূল্য ৭,০০,২৪৪| অন্যদিকে বিরোধীদের সম্মিলিত প্রার্থী মীরা কুমার পেয়েছেন ৩৪.৩৫ শতাংশ ভোট| তিনি পেয়েছেন ১৮৪৪ জনের ভোট, যার ভোট মূল্য ৩,৬৭,৩১৪|তবে মীরা কুমার পরাজিত হলেও তিনি ১০টি রাজ্যে শাসক দলের প্রার্থীর চেয়ে অনেক বেশি ভোট পেয়েছেন| বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, ভোটের ফল থেকে অনুমান করা হচ্ছে, ব্যাপক ক্রস ভোটিং হয়েছে একাধিক রাজ্যে| মূলত বিরোধী শিবিরের লোকজন মীরার বদলে কোবিন্দকে ভোট দিয়েছেন |

 গত ১৭ জুলাই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দিন বিধানসভায় রাজ্য বিজেপি সভাপতি এই ক্রস ভোটিং-এর কথাই বলেছিলেন | ওই দিন বিধানসভায় ভোট দিতে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, আসল ভোটের চেয়ে ক্রস ভোটিং বেশি হবে| আগেও হয়েছে| এবারও হবে| তবে এবার আরও বেশি ক্রস ভোট হবে|

 গতকাল নির্বাচনের ফল প্রকাশ হলে দেখা যায় কোবিন্দ ১১টি ভোট পেয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ থেকে| এর মধ্যে বিজেপির ৩ বিধায়ক ও গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার ৩ বিধায়কের ভোট রামনাথের পাওয়ার কথা ছিল ৬টি ভোট | কিন্তু, তিনি ৫টি অতিরিক্ত ভোট পাওয়ায় প্রমাণিত হল, রাজ্য বিধানসভায় ক্রস ভোটিং হয়েছে| যার মানে দাঁড়াচ্ছে বাম-কংগ্রেস-তৃণমূল বিধায়কদের মধ্যেই কেউ কেউ এনডিএর-এর রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন|

চমক শুধু ক্রস ভোটিংয়েই শেষ হয়নি| পরিসংখ্যান বলছে, পশ্চিমবঙ্গের ১০জন বিধায়কের ভোট বাতিল হয়েছে| গোটা দেশে বাতিলের সংখ্যাটা যেখানে ২১, সেখানে ১০জনই এই রাজ্যের| এই তথ্য সামনে আসার পর আলোচনায় উঠে এসেছে একটিই প্রশ্ন, যাঁরা নিজেদের জোটের প্রার্থী মীরাকুমারকে ভোট না দিয়ে কোবিন্দকে ভোট দিয়েছেন তাঁরা কি উদ্দেশ্যে তা করেছেন| আবার যে ১০ জনের ভোট বাতিল হয়েছে তার পেছনে কি কোনও গোপন ইচ্ছা কাজ করেছে, সেই  প্রশ্ন নিয়েও রাজ্যরাজনীতি আলোড়িত| অনেকে এই দুইয়ের মধ্যে যোগসুত্র খোঁজার চেষ্টা করছেন|

 রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস সহ বাম-কংগ্রেস অবিজেপি রাজনৈতিক দলগুলি যতই কেন্দ্র সরকার বিরোধী সুর চড়াক না কেন তাদের মধ্যেও যে বিজেপি তথা কেন্দ্রের সরকারের প্রতি অনুরাগ জন্ম নিচ্ছে তা প্রমাণ করল এই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন| তবে যতই চেষ্টা করা হোক না কেন, যে অবিজেপি বিধায়করা ক্রস করে মোদী সরকারের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন, তাঁদের নাম জানা সম্ভব নয়| কারণ, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন গোপন ব্যালটে হয়| তবে, এটা বলাই যায় যে এই ঘটনা ঘিরে শুরু হয়েছে চাপানউতোর|

 রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রেসিডেন্ট  নির্বাচনে অবশ্য কোনও দলই তাদের বিধায়ক বা সংসদ সদস্যকে নিজেদের প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার জন্য বাধ্য করতে হুইপ জারি করতে পারে না| তাই ক্রস ভোটিং করা বিধায়কদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও কোনও সুযোগ নেই|

News

রামনাথ কোবিন্দকে টুইট করে অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

নয়াদিল্লি, ২০ জুলাই : দেশের চতুর্দশতম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিকটতম  প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মীরা কুমারকে হারিয়ে বৃহস্পতিবার জয়লাভ করেন  প্রার্থী রামনাথ কোবিন্দ| রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জয়লাভের পর রামনাথ কোবিন্দকে টুইট করে অভিনন্দন জানালেন  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী| টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ায় রামনাথ কোবিন্দজিকে অভিনন্দন| ফলপ্রসূ এবং অনুপ্রেরণাদায়ক সময়ের জন্য শুভেচ্ছা রইল| ’ টুইটে তিনি আরও লিখেছেন, ‘সাংসদরা এবং বিভিন্ন রাজ্য রামনাথ কোবিন্দকে সমর্থন করায় আনন্দিত| ইলেক্টোরাল কলেজের সদস্যদের ধন্যবাদ|’

প্রত্যাশা মতোই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জয়ী এনডিএ  প্রার্থী রামনাথ কোবিন্দ |  মোট ভোটের প্রায় ৬৬ শতাংশ ভোট পেয়ে দেশের ১৪ তম রাষ্ট্রপতি হলেন রামনাথ কোবিন্দ |  তাঁর বিপক্ষে মাত্র ৩৫.৩৩ শতাংশ ভোট পেয়েছেন বিরোধীদের  প্রার্থী মীরা কুমার | রাইসিনা হিলে দেশের দ্বিতীয় দলিত রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রবেশ করবেন রামনাথ কোবিন্দ | ৭,০২,০৪৪ ভোট পেয়েছেন রামনাথ | তাঁর মোকাবিলায় ৩,৬৭,৩১৪ ভোট পেয়েছেন বিরোধীদের প্রার্থী মীরা কুমার | রামনাথ পেয়েছেন ৫২২ সাংসদের ভোট ও মীরা পেয়েছেন ২২৫ সাংসদের ভোট  |

প্রধানমন্ত্রী বিরোধী প্রার্থী মীরা কুমারকেও অভিনন্দন জানান| নির্বাচন ঘিরে তিনি যেভাবে ক্যাম্পেন করেন তাকে বাহবা জানিয়ে  প্রধানমন্ত্রী টুইট করেন, ‘এই গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ নিয়ে আমরা গর্বিত|’ প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি এদিন রামনাথ কোবিন্দকে অভিনন্দন জানান বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ| তিনি বলেন, ‘রামনাথ কোবিন্দের জয় ঐতিহাসিক জয়|’ পাশাপাশি  সদস্য,  পরিবার এবং অন্যান্য দল এবং নেতা যারা রামনাথ কোবিন্দকে সমর্থন করেছেন তাঁদের ধন্যবাদ|

এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় কোবিন্দের সঙ্গে তোলা ২০ বছর আগের একটি ছবি টু্যইট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী| যাতে দেখা যাচ্ছে দুদশক আগে কোবিন্দের কোনও পারিবারিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত নরেন্দ্র মোদী| একইসঙ্গে সাম্প্রতিক একটি ছবিও পোস্ট করেন তিনি| যেখানে রামনাথ কোবিন্দ সহ মোদীর সঙ্গে রয়েছেন পুরো কোবিন্দ পরিবার|

News

উত্সব শুরু রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জয়ী রামনাথ কোবিন্দের গ্রামে

লখনও, ২০ জুলাই (হি.স.) : ভারতের ১৪তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হলেন রামনাথ কোবিন্দ| পেয়েছেন প্রায় ৬৬ শতাংশ ভোট| দুপুর থেকেই উত্তর প্রদেশের কানপুর দেহাত জেলার পারাউখ গ্রামে শুরু হয়ে যায় উত্সব| বৃহস্পতিবার দুপুর গড়াতেই খবর আসতে থাকে দ্বিগুণেরও বেশি ভোটে এগিয়ে রয়েছেন এনডিএর প্রার্থী রামনাথ কোবিন্দ| আর তার পরেই ঢোল হারমিনয়াম নিয়ে পারাউখের রাস্তায় নেমে পড়েন গ্রামবাসীরা| অন্যদিকে, দলের সমর্থকরাও উল্লাস শুরু করে দেন|

এদিন ভোটগনাণা শুরু হতেই রামনাথ কোবিন্দ যে স্কুলে পড়াশোনা করতেন সেখানে রাময়ণকথা শুরু হয়ে যায়| বেলা যত বেড়েছে ততই লোক বেড়েছে ওই স্কুলে| কেবিন্দের ছোটবেলার বন্ধু গৌরীশঙ্কর শ্রীবাস্তব সংবাদ মাধ্যমে জানালেন, গোটা বিশ্ব এবার আমাদের গ্রামকে চিনবে| আর তার প্রধান কারিগর রামনাথ| এবার হয়তো গ্রামের রাস্তা অনেকটা ভালো হয়ে যাবে|

রামনাথ কেবিন্দের গ্রামের বাড়ি থেকে কুড়ি কিলোমিটার দূরে ঝিনঝক শহরে থাকেন রামনাথ কোবিন্দের বড় দাদা পেয়ারেলাল কোবিন্দ| পরিবারে কনিষ্ঠতম সন্তান রামনাথ| বাকী ভাইরাও ওই শহরেই থাকেন| সেখানেও ভাইদের বাড়িতেও উত্সব শুরু হয়েছে| ঝিনঝক শহরের আবার রামনাথের জয়ের সেলিব্রেশনের জন্য ডিজে ডাকা হয়েছে| আয়োজন করা হয়েছে নাচের| চলছে ভোজপুরি গান|| রামনাথের দাদা পেয়ারেলালের একটি কপড়ের দোকান রয়েছে| তিনি জানালেন, রামনাথ কখনও রাবার স্ট্যাম্প হয়ে থাকবেন না| ও নিজের মতো কাজ করতে ভালোবাসে| কারও হস্তক্ষেপ খুব বেশিদিন মেনে নেবে না|

News