ট্যাগগুলি » গুগল

গুগলের চাকরি ছেড়ে শুধু শিঙাড়া বেচেই কামাই ৫০ লাখ!

ঝুঁকিটা তিনি নিয়েই ফেলেছিলেন। বিশ্বের সেরা আইটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি। আর সেই সংস্থাটি যদি হয় ‘গুগল’ তবে তো কোনও কথাই নেই। মুম্বইয়ের নার্সি মনজি থেকে এমবিএ করে বছরখানেক দেশেই চাকরি করেছিলেন তিনি। এর পর ডাক এল গুগল থেকে। আমেরিকায় কয়েক বছর লেগে রইলেন মুনাফ। কিন্তু সাহেবদের দেশে কেন যেন মন বসল না তাঁর।সব রকম প্রলোভন ছাপিয়ে মায়ের হাতের রান্না করা খাবার আর বন্ধুদের সঙ্গে দোকানে বসে চা-শিঙাড়া খাওয়ার সময়টার কথা ভেবে থাকা আর হল না ওখানে।

নিজের বাড়ির খাবারকে মিস করেন অনেকেই। সেই ভাবনা থেকেই মুনাফ তাঁর রেস্তোরাঁর ট্যাগলাইন দিয়ে ফেললেন— ‘ঘর কা খানা’। যেমন ভাবা তেমন কাজ। ২০১৫ সালে তিনি ‘দ্য বোহরি কিচেন’ নামে একটি রেস্তোরাঁ খুলে ফেললেন কাপাডিয়া। মাত্র দু’বছরের মধ্যে মুনাফের ‘দ্য বোহরি কিচেন’ হয়ে উঠল মুম্বইয়ের অন্যতম আলোচিত ফুড ডেস্টিনেশন। বছরে তাঁর রেস্তোরাঁর টার্ন ওভার ৫০ লক্ষ টাকা। এই শিঙাড়া বিক্রির ব্যবসা শুরু করার জন্যই টেক জায়ান্ট গুগলের আরামদায়ক চাকরি ছেড়েছিলেন মু্ম্বইয়ের বাসিন্দা ২৯ বছরের মুনাফ।

তাঁর ইচ্ছে কয়েক বছরের মধ্যে মুনাফার অঙ্কটাকে বছরে পঞ্চাশ লক্ষ থেকে পাঁচ কোটিতে নিয়ে যাবেন তিনি। মুনাফ ‘টাইমস নাউ’কে বলেন, ‘‘সাফল্যের জন্য ঝুঁকি নিতে হয়।’’ এখানেই থামছেন না মুনাফ। জার্নিটা সবে শুরু। আরও এগিয়ে যেতে চান অনেক অনেক দূর পর্যন্ত।  তাঁর ‘বোহরি কিচেন’কে ছড়িয়ে দিতে চান ভারতের সীমানা পেরিয়ে দেশের বাইরেও। ফোর্বস ম্যাগাজিন সম্প্রতি ‘আন্ডার থার্টি’ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছে মুনাফ কাপাডিয়ার নাম।

প্রথম পাতা

গুগল OCR ব্যবহার পদ্ধতি

গুগল OCR বিস্ময়কর এক প্রযুক্তি। যারা ইতমধ্যেই এই প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন তাদেরকে নতুন করে বলার কিছু নেই, কিন্তু অনেকেই আছেন যারা এখনও এই বিস্ময়কর প্রযুক্তি সম্পর্কে এখনও জানেন না। তাদের জন্যেই আজকের টিউটোরিয়াল। প্রথমেই জেনে নেওয়া যাক OCR কি? 24 more words

বাংলা কম্পিউটিং

গুগল ট্রান্সলেট দেখা যাবে নতুন রুপে

এক ভাষা থেকে আরেক ভাষায় অনুবাদ করতে গুগল ট্রান্সলেটরের সাহায্য নেওয়া যায়।এই অ্যাপকে আরও উন্নত করা হচ্ছে। এখন থেকে পুরো বাক্য শুদ্ধ অনুবাদ করতে পারবে গুগল ট্রান্সলেট।

গুগলের এক ব্লগ পোস্টে এ ঘোষণা দেয়া হয়েছে। তাতে বলা হয়, বড় অনুবাদও প্রাসঙ্গিক করবে গুগল। মানুষ যেভাবে ব্যাকরণ ব্যবহার করে কথা বলে, সেভাবে গুছিয়ে বাক্য গঠন করবে অ্যাপটি।এতে ব্যবহৃত হবে নিউরাল মেশিন ট্রান্সলেশন।

নিউরাল মেশিন পদ্ধতি হচ্ছে মানুষের ভাষা কম্পিউটারকে শেখানোর পদ্ধতি।গত বছরের সেপ্টেম্বরে গুগল এ-সংক্রান্ত গবেষণার কথা জানায়।

গত বছরের নভেম্বর থেকে পদ্ধতিটি গুগল ট্রান্সলেটরে যুক্ত করা হয়েছে।ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ, জার্মান, স্প্যানিশ ও চায়নিজ ভাষা ট্রান্সলেটে এ পদ্ধতি ব্যবহৃত হচ্ছে।অন্যান্য ভাষার ক্ষেত্রেও এর প্রয়োগ হবে।

খবর